বাণিজ্যমন্ত্রীর নামে ফেসবুক আইডি খুলে প্রতারণা, গ্রেপ্তার ১

স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা | ২৭ জুন ২০২২ ১৫:২২

গ্রেপ্তারকৃত মো. আলমগীর হোসেন (মাঝে)। ছবি: সংগৃহীত গ্রেপ্তারকৃত মো. আলমগীর হোসেন (মাঝে)। ছবি: সংগৃহীত

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সির নামে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে প্রতারণার অভিযোগে মো. আলমগীর হোসেন (২৫) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি সাইবার পুলিশ।

রোববার রাতে সিআইডি সাইবার পুলিশ গাজীপুরের কালিয়াকৈরের সফিপুরে অভিযান পরিচালনা করে আলমগীরকে গ্রেপ্তার করে। আলমগীরের কাছ থেকে ৪টি মোবাইল ফোন ও ৯টি সিম জব্দ করেছে সিআইডি।

এর আগে আলমগীরের বিরুদ্ধে কাফরুল থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ও পর্নোগ্রাফী নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে।

সোমবার সিআইডির সাইবার ইন্টেলিজেন্স অ্যান্ড রিস্ক ম্যানেজমেন্ট বিভাগের বিশেষ পুলিশ সুপার রেজাউল মাসুদ গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আলমগীর বাণিজ্যমন্ত্রীর নামে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে মন্ত্রীর ছবি ও বিভিন্ন কর্মসূচীর ছবি পোস্ট করে আসছেন দীর্ঘ দিন যাবৎ। ওই আইডিতে প্রচারিত মন্ত্রীর গণসংযোগমূলক কর্মকাণ্ডের পোস্টে প্রচুর লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার হতো। ফলে এই আইডিকে আসল বলে মনে করতেন অনেকেই।

তিনি আরও বলেন, আলমগীর আরও কয়েকজন মন্ত্রী ও প্রভাবশালী ব্যক্তির নামেও ম্যাসেঞ্জারে চ্যাটিংয়ের মাধ্যমে চাকরিসহ বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে দেওয়ার কথা বলে অর্থ আত্মসাৎ করতেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

তিনি জানান, একজন ভুক্তভোগীর অভিযোগ পেয়ে সিআইডি সাইবার পুলিশের বিশেষ এক টিম অনুসন্ধানে নামে। তদন্ত ও বিশ্লেষণে ঘটনার সত্যতা পেয়ে অভিযুক্তের পরিচয় ও অবস্থান শনাক্ত করা হয়।

রেজাউল মাসুদ বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আলমগীর স্বীকার করেছেন যে তিনি বাণিজ্যমন্ত্রীর নামে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে চাকরি প্রত্যাশীদের, বিশেষ করে নারীদের টার্গেট করে চাকরি দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে টাকা হাতিয়ে নেয়।

তিনি আরও বলেন, ভুক্তভোগীদের কাছে আস্থা অর্জন করে তাদের কাছ থেকে ব্যক্তিগত ছবিও নিতেন আলমগীর। পরবর্তীতে সেসব ছবি অনলাইনে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে ব্ল্যাকমেইল করা হতো। অনেক ক্ষেত্রে ভুক্তভোগীর নামে ফেক আইডি তৈরি করে গোপন ছবি ও ভিডিও ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগও পাওয়া গেছে।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: