শেষ ওভারের শেষ বলে ভারতের নাটকীয় জয়

সময় ট্রিবিউন | ২৩ অক্টোবর ২০২২ ১৮:৩৬

ছবিঃ সংগৃহীত ছবিঃ সংগৃহীত

ভারত-পাকিস্তান মহারণের নাটকীয় পরিসমাপ্তি ঘটেছে। গ্যালারিতে লাখ দর্শকের সমারোহে ম্যাচ মুহূর্তে মুহূর্তে রঙ বদলিয়ে এক অবাক করা জয় এনে দিল ভারতকে । দুই রকমের ব্যাটিং বিপর্যয় দেখল দু’দল; সাথে দেখল বিরাট কোহলির দৃঢ়তা। তার দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে এবং শেষ ওভারের নাটকীয়তায় শেষ বলে পাকিস্তানকে ৪ উইকেটে হারাল ভারত।

গত বছর সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত টি-২০ বিশ্বকাপে দশ উইকেটের ওই পরাজয়ের পরে এবার বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভের সবচেয়ে আকর্ষণীয় ম্যাচে প্রতিশোধ নিল ভারত।

বড় এই ম্যাচে টস জিতে বোলিং নেয় ভারত। দলটির পেসারদের সামনে সুবিধা করতে পারেননি পাকিস্তানের ব্যাটাররা। দলের ভরসা বাবর আজম গোল্ডেন ডাক মারেন, রিজওয়ান ফিরে যান ৪ রান করে। তবু তিনে নামা শান মাসুদ এবং চারে নামা ইফতিখার আহমেদের ব্যাটে ৮ উইকেটে ১৫৯ রান তোলে পাকিস্তান।

দলের হয়ে মাসুদ খেলেন ৪২ বলে হার না মানা ৫২ রানের ইনিংস। তিনি পাঁচটি চার মারেন। এক প্রান্ত আগলে রাখেন। ইফতিখার ধুঁকতে থাকা ইনিংসে প্রাণ ফেরান। ছোট্ট একটা ঝড় তোলেন। অক্ষর প্যাটেলের এক ওভার থেকে তুলে নেন ২১ রান। ফিরে যাওয়ার আগে করেন ৩৪ বলে চারটি ছক্কা ও দুই চারে ৫১ রানের ইনিংস।

জবাব দিতে নেমে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে ভারত। ৬.১ ওভারে ৩১ রানে হারায় ৪ উইকেট। ব্যর্থ হয়ে একে একে ফিরে যান ওপেনার রোহিত শর্মা (৪) এবং কেএল রাহুল (৪), চারে সূর্যকুমার যাদব (১৫) ও পাঁচে খেলা অক্ষর প্যাটেল (২)। হার্ডিককে সঙ্গে নিয়ে দলের হাল ধরেন বিরাট কোহলি। শুরুতে ইনিংস মেরামত করেন পরে তোলেন ঝড়।

হার্ডিক ইনিংসের শেষ ওভারে ফিরে যাওয়ার আগে বিরাটের সঙ্গে গড়েন ১১৩ রানের দুর্দান্ত জুটি। ওই জুটিতে পেস অলরাউন্ডার হার্ডিকের অবদান ৩৭ বলে দুই ছক্কা ও এক চারে ৪০ রান। ম্যাচ শেষ করে ফেরা বিরাট কোহলি ৫৩ বলে খেলেছেন ৮২ রানের বিধ্বংসী ইনিংস। যে ক্যামিও ইনিংস সাজানো ছয়টি চার ও চারটি ওভার বাউন্ডারিতে।

একটু পেছন থেকে বর্ণনা দিলে ৩ ওভারে ৪৮ রান দরকার ছিল ভারতের। শাহিনের ১৮তম ওভারে কোহলি তিন চারের শটে নেন ১৭ রান। ১৯তম ওভারে হারিসকে শেষ দুই বলে দুর্দান্ত ছক্কা হাঁকার কোহলি। আসে ১৫ রান। শেষ ওভারে ভারতের দরকার ১৬। প্রথম বলেই আউট হন হার্ডিক। পরের দুই বলে আসে তিন রান। চতুর্থ বলে নো করেন স্পিনার নওয়াজ। ছক্কা হাঁকান কোহলি। ফ্রি হিট বলটা প্রথমে ওয়াইড দেন, পরে স্টাম্পে লেগে ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্ট যাওয়ায় তিন রান নেয় ভারত। দুই বলে ২ দরকার থাকতে আউট হন কার্তিক। পরে আবার ওয়াইড দিলে শেষ বল থেকে এক রান নিয়ে দলকে জয়ে ভাসান অশ্বিন।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: