বাজার মূলধনের সঙ্গে বেড়েছে লেনদেনও

নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১১:০০

সংগৃহীত সংগৃহীত

তিন দিন উত্থান আর দুই দিন সূচকের পতনের মধ্যদিয়ে সেপ্টেম্বর মাসের আরও একটি সপ্তাহ পার করলো দেশের পুঁজিবাজার। আলোচিত সপ্তাহে লেনদেন ও সূচক বেড়েছে। তবে কমেছে লেনদেন হওয়া অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম। তাতে বিনিয়োগকারীদের বাজার মূলধন অর্থাৎ পুঁজি বেড়েছে ২ হাজার ৬১৭ কোটি টাকা। সাপ্তাহিক বাজার বিশ্লেষণে এ চিত্র দেখা গেছে।

ডিএসইর তথ্য মতে, বিদায়ী সপ্তাহে (১৫ থেকে ২২ সেপ্টেম্বর) মোট পাঁচ কর্মদিবস লেনদেন হয়েছে। এ পাঁচ দিনের মধ্যে সপ্তাহের প্রথম ও দ্বিতীয় কর্মদিবস সূচক বেড়েছে। তৃতীয় ও চতুর্থ কর্মদিবস সূচক কমেছে। আবার সপ্তাহের শেষ কর্মদিবস বৃহস্পতিবার সূচকের উত্থানের মধ্যদিয়ে লেনদেন হয়েছে।

আলোচিত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মোট ৩৯৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ৮৬টি কোম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে, কমেছে ১৬৬টির, আর অপরিবর্তিত ছিল ১৩৪টির। এছাড়া লেনদেন হয়নি ১০ প্রতিষ্ঠানের।

অধিকাংশ কোম্পানির কোম্পানির শেয়ারের দাম কমার পরও বড় মূলধনী কোম্পানির শেয়ারের উত্থানে বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান সূচক আগের সপ্তাহের চেয়ে ৪৮ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৫৬৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। ডিএসইর অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএস সূচক ৭ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৪৩৬ পয়েন্ট এবং ডিএস-৩০ সূচক আগের সপ্তাহের চেয়ে ১৯ পয়েন্ট বেড়ে দুই হাজার ৩৬৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

সূচক ও দাম বাড়ায় বিদায়ী সপ্তাহে বাজার মূলধন (পুঁজি) বেড়েছে ২ হাজার ৬১৭ কোটি ৪২ লাখ ৪১ হাজার ১২৬ টাকা। তবে তার আগের সপ্তাহে মূলধন কমেছিল ২ হাজার ৫৩৭ কোটি ৭৮ লাখ ৫২ হাজার ৩১০ টাকা।

সপ্তাহের শুরুতে বাজার মূলধন ছিল ৫ লাখ ২০ হাজার ১২৬ কোটি ৫৬ লাখ ৮১ হাজার ৯২১ টাকায়। সপ্তাহের শেষ কর্মদিবস বৃহস্পতিবার লেনদেন শেষে মূলধন দাঁড়িয়েছে ৫ লাখ ২২ হাজার ৭৪৩ কোটি ৯৯ লাখ ২৩ হাজার ৪৭ টাকায়। মূলধন বেড়েছে দশমিক ৫০ শতাংশ।

বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ১০ হাজার ১১০ কোটি ৩৯ লাখ ৮ হাজার ৭৮৯ টাকা। আগের সপ্তাহের লেনদেন হয়েছিল ৭ হাজার ৮২ কোটি ৯২ লাখ ৯৯ হাজার ৭২৪ টাকা। অর্থাৎ আগের সপ্তাহের চেয়ে ৩ হাজার ২৭ কোটি ৪৬ লাখ ৯ হাজার ৬৫ টাকার লেনদেন বেড়েছে। শতাংশের হিসাবে যা ৪২ দশমিক ৭৪ শতাংশ। এর মধ্যে গত মঙ্গলবার পুঁজিবাজারে ২৮৩২ কোটি টাকা লেনদেন হয়েছে। যা গত এক বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ লেনদেন ছিল।

একই অবস্থায় লেনদেন হয়েছে দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই)। বিদায়ী সপ্তাহে সিএসইর সার্বিক সূচক ২০৩ পয়েন্ট বেড়ে ১৯ হাজার ৩৪৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। এই সময়ে লেনদেন হয়েছে ৪০৮ কোটি ৯২ লাখ ৩৬ হাজার ৬১৮ টাকা। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১৪৪ কোটি ২৩ লাখ ৪১ হাজার ৯৪২ টাকা।

বিদায়ী এই সপ্তাহে লেনদেন হওয়া ৩৩৭টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৯২টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের, কমেছে ১১৬টির আর অপরিবর্তিত ১২৯টির দাম।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: