মুরাদকে আওয়ামী লীগের পদ থেকে অব্যাহতি

সময় ট্রিবিউন | ৭ ডিসেম্বর ২০২১ ১৯:১১

সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান-ফাইল ছবি সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান-ফাইল ছবি

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেওয়া সাংসদ মুরাদ হাসানকে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যাবিষয়ক সম্পাদকের পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগের এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ বলেন, মুরাদ হাসানকে দলীয় ভাবমূর্তি বিনষ্ট, অগঠনতান্ত্রিক ও শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ততার অভিযোগে গঠনতন্ত্রের ৪৭ (৯) ধারা অনুযায়ী অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে তাঁর বিরুদ্ধে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের কাছে সুপারিশ পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মুরাদ হাসান জামালপুর-৪ (সরিষাবাড়ী) আসনের সাংসদ। অশালীন, শিষ্টাচারবর্হিভূত, নারীর প্রতি চরম অবমাননাকর বক্তব্য প্রদান ও এক চিত্রনায়িকার সঙ্গে অশালীন ফোনালাপ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার কারণে গতকাল সোমবার তাঁকে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রীর থেকে পদত্যাগ করার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নাতনিকে নিয়ে প্রতিমন্ত্রীর করা অশ্লীল মন্তব্য নিয়ে কয়েক দিন ধরেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তীব্র সমালোচনা হচ্ছিল। এর মধ্যেই গতকাল ফেসবুকসহ বিভিন্ন মাধ্যমে প্রতিমন্ত্রীর ফোনালাপের একটি অডিও ছড়িয়ে পড়ে, যেখানে এক চিত্রনায়িকার সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি অশ্লীল ভাষা ব্যবহার করেন। একই সঙ্গে তাঁকে হুমকিও দেন। এ নিয়ে বিভিন্ন মহলে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। এমন অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ পেয়ে আজ মঙ্গলবার প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে অব্যাহতি পেয়ে পদত্যাগপত্র জমা দেন মুরাদ হাসান।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: