তারেক জিয়া চুরিতে অনার্স ও দুর্নীতিতে মাস্টার্স করেছে: মায়া

সালে আহমেদ,ডেমরা | ১৩ আগস্ট ২০২২ ২৩:২০

সংগৃহীত সংগৃহীত

বিএনপিও তাদের ধূসররা রাজপথে আগুনসন্ত্রাস, জ্বালাও পোড়াও করলে দাঁত ভাঙা জবাব দেওয়া হবে বলে কঠোর হুশিয়ারি দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া (বীর বিক্রম)। এ সময় তিনি তারেক জিয়া চুরিতে অনার্স ও দুর্নীতিতে মাস্টার্স করেছে বলে মন্তব্য করেন।

শনিবার রাজধানীর ডেমরায় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। 

ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম খাঁনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান মোল্লার সঞ্চালনায় এ সময় আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পানি সম্পদ উপ—মন্ত্রী এ.কে.এম এনামুল হক শামীম ও শিক্ষা উপ—মন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল,এমপি। এছাড়াও ঢাকা মহানগর দক্ষিন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম সারোয়ার কবির ৭০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী আতিকুর রহমান, ৬৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহমুদুল হাসান পলিন,সারুলিয়া ইউনিয়নের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক হোসেন,দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি রুহুল আমিন, ৬৬ নং ওয়ার্ডের আওয়ামী নেতা হানিফ তালুকদার, বামৈল উত্তর ইউনিটের সভাপতি নাসির উদ্দীন,সাধারণ সম্পাদক আবু হানিফ,৬৮ নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের নেতা তারিকুল ইসলাম খান শাহীন,ডগাইর রুস্তম আলী ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন,আরকে চৌধুরী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাকি বিল্লাহসহ নগর নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন, বিএনপি ও তাদের ধূসর স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি দেশের মধ্যে একটা অরাজকতা সৃষ্টি করার পায়তারা করছে। তাই ওয়ার্ড ও থানা আওয়ামী লীগের সকল নেতাকর্মীদের আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগমুহূর্ত পর্যন্ত সর্তক অবস্থায় থাকতে হবে। তারা যেখানেই নাশকতা করার চেষ্টা করবে,সেখানেই তাদের প্রতিরোধ করতে হবে। 

মায়া বলেন, বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের খুনের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের ফাঁসির আওতায় আনা হোক। আর বিএনপি যতই জ্বালাও পোড়াও রাজনীতি ও আন্দোলন শুরু করুক না কেন আওয়ামী লীগ তাদের দাতভাঙ্গা জবাব দিয়ে আবারও আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসবে। টানা চতুর্থবার শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হবেন। এক্ষেত্রে বিএনপি যদি সকল আন্দোলন বন্ধ করে নি:শ্বর্ত ক্ষমা চেয়ে আগামি জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহন করে তাহলে তাদের স্বাগত জানানো হবে।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: