সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ প্রতিরোধ মসজিদের ইমামদের ভূমিকা রাখতে হবে

শফিক স্বপন, মাদারীপুর  | ১৬ জুন ২০২২ ০০:২৪

সংগৃহীত সংগৃহীত

 দেশে সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায়, সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদ প্রতিরোধ এবং সামাজিক সমস্যা নিয়ন্ত্রণে মসজিদের ইমামদের ভূমিকা রাখতে হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও আওয়ামীলীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শাজাহান খান এমপি। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাজাহান খান আরো বলেন, আমাদের দেশে হাজার হাজার মসজিদ রয়েছে। প্রতিটি মসজিদে মুসল্লিদের নামাজ পড়ানোর জন্য ইমাম রয়েছে। প্রতি শুক্রবার জুমুআর নামাজের সময় পাড়া-মহল্লার প্রত্যেকটি মসজিদ মুসল্লিতে ভরে যায়। এ সময় ইমাম সাহেবরা সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি, সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদ প্রতিরোধের বিষয়ে বক্তব্য দিলে সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ তাঁর কথা শুনে থাকে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদ দমনে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। যার ফলে দেশে এখন সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদ নেই। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কণ্যা সন্ত্রাস দমনের পাশাপাশি দেশের বহু উন্নয়ন সাধন করেছেন। বিশেষ করে আমাদের দক্ষিণবঙ্গের কোটি মানুষের ¯^প্ন পদ্মা সেতু নির্মাণ করেছেন। আগামী ২৫ জুন প্রধানমন্ত্রী আমাদের ¯^প্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন। এ জন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই। 

 

 

মাদারীপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বুধবার সকাল ১১টায় জেলা বিভিন্ন মসজিদের ইমাম, খতিব ও আলেম-ওলামাদের নিয়ে সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ প্রতিরোধ এবং সামাজিক সমস্যা নিয়ন্ত্রণ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক ডক্টর রহিমা খাতুন এর সভাপতিত্বে কর্মশালায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মো. আলম হোসেন, আহমাদিয়া আলিয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মো. শহাদাৎ হোসাইন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেন সেলিম, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাস্টার ট্রেইনার ও পৌরসভা জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা রুহুল আমিন প্রমুখ।  

 

 

 

শফিক স্বপন, মাদারীপুর।

 

১৫-৬-২২

 

 

 

সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ প্রতিরোধ মসজিদের ইমামদের ভূমিকা রাখতে হবে

 

 

আওয়ামীলীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শাজাহান খান এমপি

 

শফিক স্বপন মাদারীপুর , মাদারীপুর 

 

দেশে সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায়, সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদ প্রতিরোধ এবং সামাজিক সমস্যা নিয়ন্ত্রণে মসজিদের ইমামদের ভূমিকা রাখতে হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও আওয়ামীলীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শাজাহান খান এমপি। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাজাহান খান আরো বলেন, আমাদের দেশে হাজার হাজার মসজিদ রয়েছে। প্রতিটি মসজিদে মুসল্লিদের নামাজ পড়ানোর জন্য ইমাম রয়েছে। প্রতি শুক্রবার জুমুআর নামাজের সময় পাড়া-মহল্লার প্রত্যেকটি মসজিদ মুসল্লিতে ভরে যায়। এ সময় ইমাম সাহেবরা সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি, সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদ প্রতিরোধের বিষয়ে বক্তব্য দিলে সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ তাঁর কথা শুনে থাকে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদ দমনে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। যার ফলে দেশে এখন সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদ নেই। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কণ্যা সন্ত্রাস দমনের পাশাপাশি দেশের বহু উন্নয়ন সাধন করেছেন। বিশেষ করে আমাদের দক্ষিণবঙ্গের কোটি মানুষের ¯^প্ন পদ্মা সেতু নির্মাণ করেছেন। আগামী ২৫ জুন প্রধানমন্ত্রী আমাদের ¯^প্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন। এ জন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই। 

মাদারীপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বুধবার সকাল ১১টায় জেলা বিভিন্ন মসজিদের ইমাম, খতিব ও আলেম-ওলামাদের নিয়ে সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ প্রতিরোধ এবং সামাজিক সমস্যা নিয়ন্ত্রণ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক ডক্টর রহিমা খাতুন এর সভাপতিত্বে কর্মশালায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মো. আলম হোসেন, আহমাদিয়া আলিয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মো. শহাদাৎ হোসাইন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেন সেলিম, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাস্টার ট্রেইনার ও পৌরসভা জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা রুহুল আমিন প্রমুখ।  



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: