বিধিনিষেধ কার্যকরে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় ১০৬ ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ

সময় ট্রিবিউন | ৩০ জুন ২০২১ ১৯:২২

ফাইল ছবি ফাইল ছবি

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে কঠোর বিধিনিষেধ চলাকালে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের ১০৬ কর্মকর্তাকে নিয়োগ দিয়েছে সরকার।

করোনাভাইরাস সংক্রমণে বিপর্যস্ত দেশ। শহরের পাশাপাশি গ্রামাঞ্চলেও ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে বৃস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে সাত দিনের কঠোর বিধিনিষেধ। দেশব্যাপী কঠোর বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে ভ্রাম্যমাণ পরিচালনা করতে বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারের ১০৬ জন কর্মকর্তাকে নিয়োগ দিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। বুধবার (৩০ জুন) রাতে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

‘দ্য কোড অব ক্রিমিনাল প্রসিডিউর, ১৮৯৮’র ১০(৫) ধারা অনুযায়ী এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটের ক্ষমতা দিয়ে মোবাইল কোর্ট আইন, ২০০৯-এর ৫ ধারা মোতাবেক বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের আওতাধীন এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) সংশ্লিষ্ট বিভাগীয় কমিশনারের নির্দেশনা অনুযায়ী দায়িত্ব পালনের জন্য বলা হয়েছে প্রজ্ঞাপনে।

বুধবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে মহামারি নিয়ন্ত্রণে কঠোর বিধিনিষেধের বিষয়ে জারি করা প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা থেকে ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত বিধিনিষেধ বলবৎ থাকবে। সারাদেশে সর্বাত্মক লকডাউনের কঠোর বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে মাঠে থাকবে সেনাবাহিনী।

এই প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়েছে, ‘আর্মি ইন এইড টু সিভিল পাওয়ার’ বিধানের আওতায় মাঠ পর্যায়ে কার্যকর টহল নিশ্চিত করার জন্য সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ প্রয়োজনীয় সংখ্যক সেনা মোতায়েন করবে।

এর আগে, এর আগে ১ জুলাই সকাল ৬টা থেকে ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ ঘোষণা করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: