মেয়রের মাদক সেবনের ভিডিও ফাঁস

সময় ট্রিবিউন | ১১ মে ২০২১ ২০:২৬

যশোরের কেশবপুর পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম মোড়ল-ছবি: সংগৃহীত যশোরের কেশবপুর পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম মোড়ল-ছবি: সংগৃহীত

যশোরের কেশবপুর পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম মোড়লের মদের আড্ডায় মাদক সেবনের ভিডিও ফাঁস হয়েছে।

মঙ্গলবার মেয়রের মাদকসেবনের একটি ভিডিও সময় ট্রিবিউনের হাতে এসেছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, মেয়র লুঙ্গি পড়ে, খালি গায়ে একহাতে সিগারেট এবং অন্যহাতে মদের গ্লাস হাতে নিয়ে মদ পান করছেন। ভিডিওতে মেয়রের পাশে আরও একজন অজ্ঞাত ব্যক্তি রয়েছেন যিনি মেয়রকে মদ পান করাতে সাহায্য করছেন।

ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা জানান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক খন্দকার আব্দুল আজিজ বেশ কয়েকদিন যাবত থেকে নিজের ফেসবুকে বিভিন্ন সময়ে মেয়র রফিকুল ইসলাম মোড়লের মদ্যপানের ছবি আপলোড করে আসছেন।

তবে সোমবার মেয়র রফিকুল ইসলামের একটি মদের আসরের ভিডিও ফেসবুকে ফাঁস হয়।

এ প্রসঙ্গে জানতে কেশবপুর পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলামের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

নেতাকর্মীদের অভিযোগ, কেশবপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলাম মোড়ল সাংগঠনিকভাবে পৌরসভার অভ্যন্তরে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড করার সাংগঠনিক অধিকার রাখলেও তিনি গোটা উপজেলার রাজনীতিতে প্রভাব বিস্তার করে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের কোণঠাসা করেছেন। তিনি নিজস্ব একটি সন্ত্রাসী বাহিনী গঠন করে আতঙ্ক সৃষ্টি করছেন। মেয়রের রাজনীতির বলয়ের বাইরে গেলে ওই বাহিনীর অপমান-মারধর এখন নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। এমনকি বিএনপি পরিবারের সন্তান এক ডজন মামলার আসামি সিএনজিচালক জামালের নেতৃত্বে থাকা ওই বাহিনী উপজেলার অধিকাংশ গ্রামে গিয়ে সালিস-বিচারের নামে চাঁদাবাজি-দখলদারিত্ব চালাচ্ছে। গত এক মাসে অন্তত আট ব্যক্তিকে জামাল বাহিনী মারপিট করে গুরুতর আহত করেছে। তবুও কোনো ভুক্তভোগী থানায় অভিযোগ করতে সাহস পাইনি।

নেতাকর্মীদের অভিযোগ, মেয়র রফিকুল কেশবপুরের মাদক ব্যবসায়ীদের বড় বড় সিন্ডিকেটকে নিয়ন্ত্রণ করেন। নিজের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে মাদক ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন সুযোগ দিয়ে আসছেন।

মেয়রের মাদক সেবনের ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: