জলবায়ুর ন্যায্যতার দাবীতে কুয়াকাটার গঙ্গামতিতে মানববন্ধন

জুয়েল ফরাজী, কুয়াকাটা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি | ৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৩:২৩

জলবায়ুর ন্যায্যতার দাবীতে কুয়াকাটার গঙ্গামতিতে মানববন্ধন
 বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধির ফলে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব থেকে পৃথিবীকে রক্ষার আহবান জানিয়ে ও জলবায়ু পরিবর্তনের ন্যায্যতার দাবি জানিয়ে কুয়াকাটার গঙ্গামতিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
 
শনিবার সকালে গঙ্গামতি সমুদ্র সৈকতে জলবায়ু ন্যায্যতার দাবিতে  ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ, আমরা কলাপাড়াবাসী, কুয়াকাটা বয়েস ক্লাব, কুয়াকাটা তরুন ক্লাব ও গঙ্গামতি ক্ষুদ্র জেলে মৎস সমিতি এই মানববন্ধন আয়োজন করে।
 
ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ কলাপাড়া উপজেলার প্রতিনিধি কামাল হাসান রনি বলেন, উন্নত রাষ্ট্রগুলোকে কার্বন নিঃসরণের পরিমাণ শুন্যের কোটায় আনা খুবই জরুরী এবং ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোকে অভিযোজন প্রক্রিয়ার আওতায় ঋণ নয় ক্ষতিপূরণ দেয়ার দাবী করেন।
 
আমরা কলাপাড়াবাসী সংগঠনের সভাপতি মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন,উপকূল জুড়ে যে পরিবারগুলোর ক্ষতি হয় সেই ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর জন্য বাজেটে বিশেষ বরাদ্দের রাখার আবেদন জানান।
 
তরুন ক্লাবের সভাপতি ইব্রাহিম ওয়াহিদ বলেন,জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে উপকূলে দুর্যোগ বাড়ছে। লবণাক্ততার আগ্রাসনে ফসলের উৎপাদন কমছে। পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা সাগরসৈকত ধ্বংস হচ্ছে। ফলে উপকূলের মানুষ বেকার হয়ে যাচ্ছে এবং বাস্তুচ্যুত হয়ে এলাকা ছাড়তে বাধ্য হচ্ছে।
 
কুয়াকাটা বয়েস ক্লাবের প্রতিনিধি সাগর বলেন, বিশ্বব্যাংক, আইএমএফসহ বৈশ্বিক সংগঠনগুলোর ঋণনীতিতে মুনাফা অর্জনকেই প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। যেখান থেকে বেরিয়ে এসে বাস্তুসংস্থান ও জলবায়ুর বিষয়ে গুরুত্বারোপ করতে হবে।
 
মানববন্ধনে অন্যান্য বক্তারা বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বিশ্বে অক্সিজেন কমছে।  হুমকির মুখে পড়ছে পুরো বিশ্ব। বাড়ছে সাইক্লোন, বজ্রপাত সহ আরও প্রাকৃতিক দুর্যোগ। নদী ভাঙ্গনের ফলে অসহায় হয়ে পড়েছে হাজার হাজার পরিবার। গাছ কেটে বন ধ্বংসের কারণে হারিয়ে যাচ্ছে বন্যপ্রাণীরা। যেখানে সেখানে প্লাস্টিক বর্জ্য ফেলার কারণে ধ্বংস হচ্ছে পরিবেশের ভারসাম্য।
মানববন্ধনে স্থানীয় জেলে, ভুক্তভোগী পরিবার, পরিবেশ কর্মী, স্বেচ্ছাসেবক সংগঠনসহ শতাধিক মানুষ অংশগ্রহন করে।

আপনার মূল্যবান মতামত দিন: