বিরোধের বলি হলো নিরীহ প্রাণী...

নোয়াখালীতে দুর্বৃত্তদের আগুনে পুড়ল ৩২ ভেড়া

নোয়াখালী প্রতিনিধি | ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৫:৫৯

সংগৃহীত সংগৃহীত

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের চরএলাহী ইউনিয়নের চরবালুয়া গ্রামে একটি খামারে দুর্বিত্তদের দেয়া আগুনে খামারে থাকা অন্তত ৩২টি ভেড়া পুঁড়ে ছাই হয়ে গেছে। পেট্রোলে দেওয়া এ আগুনে খামারে থাকা ভেড়া পুঁড়ে অন্তত ৪ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি ক্ষতিগ্রস্থদের।

গতকাল রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার ৮নং চরএলাহী ইউনিয়নের ৬নম্বর ওয়ার্ডের চরবালুয়া গ্রামের জামশেদের খামার বাড়িতে এ আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রাত সাড়ে ৮টার দিকে জামশেদের খামারে আগুন জ্বলতে দেখে স্থানীয় লোকজন। পরে বিষয়টি স্থানীয় একটি মসজিদের মাইকে ঘোষণা করলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসে। কিন্তু আগুনের ভয়াবহতা থাকায় নিয়ন্ত্রণের আগেই পুরো খামার এবং খামারে থাকা জীবন্ত ৩২টি ভেড়া পুড়ে ছাঁই হয়ে যায়।

ক্ষতিগ্রস্থ খামারের মালিক মো. জামশেদ উদ্দিন অভিযোগ করে বলেন, সন্ধ্যায় ভেড়াগুলোকে খামারে রেখে আমি স্থানীয় বাজারে যাই। রাত ৮টার দিকে আগুন দেখে স্থানীয় লোকজন আমাকে খবর দিলে দ্রুত আমি খামারে যাই। কিন্তু স্থানীয়রা এগিয়ে এলেও আগুনের তীব্রতায় দেখে ভয় পেয়ে যায়। ততক্ষণে খামারে থাকা ৩২ টি ভেড়া পুড়ে ছাই হয়ে যায়। আগুনে প্রায় চার লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

তিনি অভিযোগ করেন, স্থানীয় আবদুল হামিদ মেস্ত্রী নামের এক ব্যক্তির সাথে তাদের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে রোববার দিবাগত রাতে খামারের ভেতরে কেউ না থাকার সুযোগে পেট্রোল দিয়ে খামারে আগুন ধরিয়ে দেয়। তিনি বলেন, হামিদ মেস্ত্রীকে আমার পরিবারের লোকজন দেখেছে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে আবদুল হামিদ মেস্ত্রীর ব্যবহৃত মোবাইলে একাধিক বার চেষ্টা করলেও তার নাম্বারটি বন্ধ পাওয়া যায়।

কোম্পানীগঞ্জের উরিরচর পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ এসআই রমজান হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, খবর পেয়ে রাতে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ক্ষতিগ্রস্থদের অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: