কলাপাড়ায় বিএনপি'র ৪৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

আল-আমিন, কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি | ১ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২২:০৬

সংগৃহীত সংগৃহীত

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র ৪৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কলাপাড়া উপজেলা বিএনপি, পৌর বিএনপি, অঙ্গসংগঠনের আয়োজনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১লা সেপ্টেম্বর) বিকাল ৪টায় কলাপাড়া উপজেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

উক্ত আলোচনা সভায় কলাপাড়া উপজেলা বিএনপির আহবায়ক হাজী হুমায়ুন সিকদারের সভাপতিত্বে। উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক এ্যাডভোকেট নাসির উদ্দীনের সঞ্চালনায়। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন এ্যাডভোকেট হাফিজুর রহমান চুন্নু, সদস্য সচিব উপজেলা বিএনপি, গাজী মোঃফারুক আহম্মেদ, সভাপতি পৌর বিএনপি, মোঃমুসা তাওহীদ নান্নু মুন্সি, সাধারন সম্পাদক পৌর বিএনপি, গাজী গোলাম সরোয়ার, যুগ্ম-আহবায়ক উপজেলা বিএনপি। মোঃ হারুন-আর রশিদ, সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক উপজেলা যুবদল, কেএম মেহেদি হাসান প্রিন্স খলিফা ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকদল, মোঃনূরে এলাহী সদস্য সচিব উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দল, মোঃরুহুল আমিন গাজী সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকদল, মোঃকল্লোল বিশ্বাস আহবায়ক পৌর স্বেচ্ছাসেবক দল, কাজী ইয়াদুল ইসলাম তুষার আহবায়ক উপজেলা ছাত্রদল, মোঃআমিরুল ইসলাম ফাহিম সদস্য সচিব উপজেলা ছাত্রদল, মোঃজুয়েল ইকবাল সদস্য সচিব পৌর ছাত্রদল, মোঃইসমাইল হোসেন সদস্য সচিব এমবি কলেজ ছাত্রদল।

এছাড়াও উপজেলা বিএনপি পৌর বিএনপি সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, কৃষকদল, শ্রমিক দল সহ অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

এসময় উপজেলা বিএনপির সভাপতি হাজী হুমায়ুন সিকদার বলেন, মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বের জন্য স্বাধীনতা পরবর্তী সরকারই জিয়াউর রহমানকে বীর উত্তম খেতাবে ভূষিত করেছে। কিন্তু বর্তমান সরকার সে ইতিহাসকে বিকৃত করে নতুন প্রজন্মের কাছে উপস্থাপন করছেন।

আওয়ামী লীগ নেতারা জিয়াউর রহমান, বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নামে বিভিন্ন অপবাদের বুলি ছুড়ছেন। কারন জিয়া পরিবারের জনপ্রিয়তাকে আওয়ামী লীগ ভয় পায়। তাই তারা বিএনপি ও বিএনপি’র নেতাদের নামে কুৎসা রটিয়ে জনবিচ্ছিন্ন করার অপপ্রয়াস চালাচ্ছে। দেশের মানুষ এখন তাদের এসব মিথ্যা ভিত্তিহীন কথা বিশ্বাস করে না। দেশবাসী জানে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কাজই হচ্ছে বিএনপির নামে কুৎসা রটানো। তাই আপনারা কোন ভয় করবেন না। সময় আসছে রুখে দাঁড়ানোর৷পরিশেষে তিনি বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি ও সুস্থতা কামনা করেন।পরে আলোচনা সভা শেষে কেক কেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: