শখের বশে কলা চাষ: বর্তমানে সফল চাষী

মো. মহাসিন মিয়া, দীঘিনালা (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি | ১১ আগস্ট ২০২২ ০৮:৪৮

সংগৃহীত সংগৃহীত

মোহাম্মদ হাসমত আলী পেশায় একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী হলেও শখের বশে হয়েছেন চাষী।

তিনি খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা দীঘিনালা উপজেলার রশিক নগর গ্রামের মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামের ছেলে। বয়ে যাওয়া নদীর চরে সখের বশে পরিত্যাক্ত ৮০ শতক জমিতে আগাছা পরিষ্কার করে রঙ সাগর জাতের কলা চাষ করেছেন। ৮০ শতক জমিতে ৫'শত কলা চারা রোপণ করেন তিনি। বর্তমানে প্রতিটি গাছেই রঙ সাগর কলার দৃষ্টিকারা ছড়ি ধরেছে। বলা যায় এখন তিনি একজন সফল কলা চাষী।

সরেজমিনে গেলে চাষী মোহাম্মদ হাসমত জানান, রঙ সাগর কলা চাষে তেমন কীটনাশক প্রয়োগ করতে হয় না। কিছু পরিমাণে সার ও অধিক পরিমাণে জৈব সার দিলে হয়। প্রথম বারের মত সখের বশে এ জাতের কলা চাষে সফলতা পেয়েছি বলে মনে করি। বর্তমানে ৫'শত গাছের প্রতিটিতেই রঙ সাগর জাতের কলার ছড়া আছে, ইনশাআল্লাহ বর্তমান বাজার ধরে প্রায় দেড় লাখ টাকারও বেশি বিক্রি করতে পারবো বলে আশা করছি। কীটনাশকমুক্ত থাকায় স্থানীয়দের কাছে এ কলার চাহিদা দিন দিন বাড়ছে। আমি মনে করি অল্প খরচে অধিক লাভবান হওয়া যায় কলা চাষে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর থেকে উৎসাহ পেলে আমি আরও এ জাতের কলা চাষ করতে আগ্রহী।

চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী আমরা জানি, মানুষের দেহে ক্যালরির চাহিদা মেটাতে ফলের মধ্যে কলার বিকল্প নেই। কলায় থাকা ক্যালরির পরিমাণ প্রায় ১'শত। এছাড়াও কলায় রয়েছে খনিজ পদার্থ, ভিটামিন, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, যা আমাদের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সহায়তা করে।

এছাড়াও স্থানীয় কয়েকজন চিকিৎসকের সাথে কথা বলে জানা যায়, গুণেসমৃদ্ধ ফল হলো কলা এবং কলার পুষ্টিগুণ অধিক। কলায় রয়েছে দৃঢ় টিস্যু গঠনকারী উপাদান, আমিষ, ভিটামিন এবং খনিজ। দেহের জন্য কলা ক্যালরির একটি ভালো উৎস। তারা আরও জানান, রশিক নগরের কলা চাষী মোহাম্মদ হাসমত আলী কীটনাশকমুক্ত কলা চাষ করছেন জেনে অত্যন্ত ভালো লেগেছে। একইভাবে অন্য কৃষকদেরও কলা চাষে উৎসাহিত করা প্রয়োজন।  

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, কলা বারো মাসি ফল, যা সবচেয়ে সহজলভ্য ভাবে চাষ করা যায়। বাড়ির আঙিনা, পরিত্যাক্ত জমিতে বা রাস্তার পাশে চাষ করা যায় কলা। বিগত সময়ের তুলনায় দীঘিনালায় দ্বিগুণ চাষী কৃষি বিভাগের উৎসাহ পেয়ে কলা চাষে আগ্রহী হয়েছেন। পুষ্টিগুণে ভরপুর কলা চাষ করে সফল হয়েছেন উপজেলার বহু চাষী। সকল চাষীর জন্য আমাদের থেকে সর্বাত্বক সহযোগিতা থাকবে।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: