হিজড়ার ঘরে কন্যা শিশুর জন্ম: এলাকায় জুড়ে তোলপাড়!

কলাপাড়া উপজেলা প্রতিনিধি | ১০ আগস্ট ২০২২ ১৭:২৫

সংগৃহীত সংগৃহীত

পটুয়াখালীর মহিপুরে তৃতীয় লীঙ্গের সদস্য লতা আক্তারের ঘড়ে কন্যা শিশুর জন্ম নিয়ে এলাকায় কৌতুহলের সৃষ্টি হয়েছে।

বর্তমানে ওই নবজাতকটি এক নজর দেখতে সেখানে ভিড় করছেন কৌতুহলি শত শত মানুষ।।নবজাতক কণ্যা শিশুটির নাম রাখা হয়েছে তাইফা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মহিপুর থানার দুইশ গজ দূরে বেড়িবাঁধের দক্ষিন পাশে একটি ঘরে ভাড়া থাকেন ১৫ থেকে ২০ জন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ। ওই ঘরেই লতা নামের একজন হিজড়া ১০ থেকে ১৫ দিন আগে একটি নবজাতক নিয়ে আসেন। সোমবার রাতে প্রথমে এলাকায় তিনি সন্তানটি নিজে প্রসব করেছেন বলে প্রচার চালান। এতে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। পরে তিনি জানান, যে এটি তার নিজের আপন বোনের সন্তান।

বুধবার হিজড়া লতা আক্তার সাংবাদিকদের জানান, আমার নিজ বাড়ি ঝালকাঠিতে ১ সপ্তাহ আগে আমার বড় বোনের মেয়ে সন্তান প্রসব হয়। মেয়ে সন্তান হওয়ায় বোন এবং বোন জামাই সন্তানটি মেনে নিতে পারেনি। তাই আমি লালন পালনের জন্য নিয়ে এসেছি।

বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা পাথওয়ের নির্বাহী পরিচালক মো: শাহিন জানান, মাতৃত্বের স্বাদ আসলে সবাই নিতে চায়। অনেক তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ আছে যারা অন্যের সন্তান লালন পালন করে প্রতিষ্ঠিত করেছে। আমরা তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ নিয়ে কাজ করায় বিষয়টি কাছ থেকে দেখেছি। হিজড়া লতাকেও আমি স্বাগত জানাই। হয়তো মাতৃত্বের স্বাদ গ্রহন করার জন্যই তিনি বাচ্চাটি দত্তক নিয়েছেন বা যেভাবেই হোক সংগ্রহ করেছেন। আমার পক্ষ থেকে তাকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে।

এদিকে স্থানীয়রা লতা হিজার এই কাজটি ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন এবং সবাই তার এই পালিত সন্তানটিকে মানুষ করার জন্য সহযোগিতা করবেন বলে আশ্বস্ত করছেন।

মহিপুর থানার ওসি খোন্দকার আবুল খায়ের জানান, হিজড়ার ঘরে নবজাতকের জন্ম হয়েছে বিষয়টি আমি লোকমুখে শুনেছি তবে এ ব্যাপারে খোজ খবর নেয়া হবে।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: