জামালপুরের বন্যা পরিস্থিতি অবনতি, পানিবন্দি ৬০ হাজর মানুষ

জামালপুর প্রতিনিধি | ২০ জুন ২০২২ ১২:৫৭

জামালপুরের নদ নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় নতুন করে আরো কিছু এলাকা প্লাবিত হয়েছে-ছবি: সময় ট্রিবিউন জামালপুরের নদ নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় নতুন করে আরো কিছু এলাকা প্লাবিত হয়েছে-ছবি: সময় ট্রিবিউন

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল আর বর্ষনের কারণে জামালপুরের নদ নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় নতুন করে আরো কিছু এলাকা প্লাবিত হয়েছে। 

গত ২৪ ঘন্টায় জামালপুরে বাহাদুরাবাদ ঘাট যমুনা নদীর পানি ২২ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপদসীমার ৪৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানি বন্দি হয়ে পড়েছে ৬০ হাজার মানুষ।

সোমবার (২০ জুন) সকালে জামালপুরে  যমুনা ও ব্রহ্মপুত্র জিঞ্জিরামসহ সব নদ- নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থেকে যমুনার পানি বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্ট ৪৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

জেলার ইসলামপুর, দেওয়ানগঞ্জ, মাদারগঞ্জ, মেলান্দহ, সরিষাবাড়ি ও বকশীগঞ্জে বন্যার পানি বৃদ্ধির ফলে ছয় উপজেলায় ২৬টি ইউনিয়নে পানি প্রবেশ করায় নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। পানি বন্দী হয়ে পড়েছে প্রায় ৬০ হাজার মানুষ। বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে ফসলের মাঠ, কাঁচা পাঁকা সড়ক ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বন্ধ হয়ে গেছে বন্যা দুর্গোত এলাকার নির্মাণাধীন উন্নয়ন কাজ। এছাড়াও ভাঙ্গনের কবলে পড়ে ১০টি বসতঘর বিলিন হয়ে গেছে।

এদিকে কয়েকটি আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে সামান্য ত্রান বিতরণ করা হয়েছে।

জেলা ত্রাণ ও পূর্নবাসন কর্মকর্তা মো: আলমগীর হোসেন জানিয়েছেন, বন্যা দুর্গতদের জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতিটি উপজেলায় আগেই ৩৫০ মেট্রিকটন চাল ও নগদ ৭ লাখ টাকা রাখা হয়েছে। এছাড়াও দুর্যোগ মোকাবিলা ৮৬টি আশ্রয় কেন্দ্র ও ৮০টি মেডিকেল টীম প্রস্তুত রাখা হয়েছে। বন্যা মোকাবিলায় সব ধরনের প্রস্তুতি প্রশাসনের পক্ষ থেকে রয়েছে।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: