বর্ণাঢ্য আয়োজনে পাবিপ্রবিতে বিশ্ব ফার্মাসিস্ট দিবস উদযাপন

নাজমুল ইসলাম, পাবিপ্রবি | ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৫:২০

সংগৃহীত সংগৃহীত

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পাবিপ্রবি) দ্বিতীয়বারের মতো বড় আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিশ্ব ফার্মাসিস্ট দিবস উদযাপন করেছে ফার্মেসি বিভাগ। এই আয়োজনে সহায়তা করেছে দেশের বৃহৎ ঔষধ উৎপাদন ও রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড।

দিবসটি উপলক্ষে ২৫ সেপ্টেম্বর(রবিবার) বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগ। সকাল ১০টায় একাডেমিক ভবনের সামনে থেকে র‍্যালি বের করে ফার্মেসি এ্যাসোসিয়েশন। এরপর ‘জ্যোতির্ময় জনক’ জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে ফার্মাসিস্ট শপথ পাঠ করা হয় এবং কেক কাটা হয়। এরপর দিনব্যাপী হেলথ্ ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার (টেকনিক্যাল অপারেশন্স) মো.মিজানুর রহমান।

এরপর সকাল ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্যালারী-০২ তে সেমিনারের আয়োজন করে ফার্মেসি বিভাগ। বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. শরিফুল হক এর উদ্বোধনী বক্তব্যের মাধ্যমে আলোচনা অনুষ্ঠান শুরু হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম মোস্তফা কামাল খান। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার (টেকনিক্যাল অপারেশন্স) মো.মিজানুর রহমান। আরও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. খায়রুল আলম, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের কর্মকর্তা প্রকাশ কুমার মন্ডল, খায়রুল আলম, তানজিরুল ইসলাম। এই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ফার্মেসি বিভাগের চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম।

অতিথিরা তাদের আলোচনায় ফার্মাসিস্ট দিবসের তাৎপর্যের পাশাপাশি ফার্মেসি শিক্ষায় যুগোপযোগী কারিকুলাম প্রনয়ন, ঔষধ শিল্প ও শিক্ষার যুগপৎ ব্যবস্থা, শিল্প সহ ফার্মাসিস্টদের অন্যান্য ক্ষেত্রে ভূমিকার উপর গুরুত্বারোপ করেন। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম মোস্তফা কামাল খান বলেন, ফার্মেসি বিভাগের শিক্ষার্থীদের অনেক কিছু করার সুযোগ আছে। দেশের ফার্মাসিউটিক্যাল খাত দিনে দিনে এগিয়ে যাচ্ছে। এই এগিয়ে যাওয়ার সাথে আমাদের শিক্ষার্থীদেরকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে তারা দেশের জন্য কী করবে। আমরা আশা করছি এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দক্ষ গ্র্যাজুয়েট তৈরী হবে যারা দেশের ঔষধশিল্প সহ স্বাস্থ্য খাতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে। 

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক ফার্মাসিউটিক্যাল ফেডারেশনের উদ্যোগে ২০০৯ সালে অনুষ্ঠিত ইস্তাম্বুল সম্মেলনে ২৫ সেপ্টেম্বরকে ‘বিশ্ব ফার্মাসিস্ট দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ফার্মেসি পেশায় কর্মরতদের উৎসাহ প্রদান এবং এই পেশা সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে ২০১০ সাল থেকে সারাবিশ্বে এই দিবস পালিত হয়ে আসছে। আর বাংলাদেশে এই দিবস প্রথম পালিত হয় ২০১৪ সালে। এরপর থেকে নিয়মিতভাবে দেশে এই দিবসটি স্বতঃস্ফূর্তভাবে পালিত হয়ে আসছে।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: