রাবিতে সনাতন ধর্মাবলম্বী শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ধর্ম অবমাননার মিথ্যা অভিযোগের প্রতিবাদ

রাবি প্রতিনিধি | ১১ এপ্রিল ২০২২ ১৩:২৪

সংগৃহীত সংগৃহীত

হৃদয় মণ্ডল, আমোদিনী পাল সহ সাম্প্রতিক সময়ে হিন্দু শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ধর্ম অবমাননার মিথ্যা অভিযোগের প্রতিবাদ জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) সনাতন শিক্ষক শিক্ষার্থীবন্দৃ। সোমবার (১১ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে সনাতনী শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দের ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে তাঁরা এসব ঘটনার বিচারের দাবি জানান।

মানববন্ধনে নাট্যকলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সুমনা সরকার বলেন, ১৯৭১ সালে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি অসাম্প্রদায়িক চেতনা থেকে। কিন্তু একটি চক্র বারবার বিভিন্ন ভাবে উস্কানিমূলক কথা বলে আমাদের যে সম্প্রতি তা নষ্ট করছে। এই চক্রকে নির্মুল করতে হবে। বিভিন্ন সময় ফেসবুক হ্যাক করে ধর্মের নামে উস্কানি মূলক কথা বলে হিন্দুু ধর্মাবলম্বীদের উপর হামলা করা হয়। কিন্তু তার সুষ্ঠ বিচার আমরা পাই না। আমরা প্রত্যেকটা ঘটনায় দেখি যে তাৎক্ষণিক ভাবে গ্রেফতার করা হয় কিন্তু তদন্তে যখন মূল আসামি বেড়িয়ে আসে তখন আর কোন ব্যবস্থা নেয়া হয় না। এর কারণে এ ধরণের ঘটনার গুলো ঘটছে। একটি ঘটনা ঘটার পর যদি এর সত্যতা যাচাই করে সঠিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হতো তাহলে বার বার এ ধরণের ঘটনার পুনরাবৃত্তি হতো না।

প্রণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় হিন্দু সম্প্রদায়ের জনসংখ্যা ছিল ১৫ শতাংশ। বাংলাদেশে যেন হিন্দুরা বাস করতে না পারে, তারা যেন অন্যত্র চলে যায়, সে ব্যবস্থা করছে এদেশের একটি চক্র। যার ফলে হিন্দু সম্প্রদায় ১৫ শতাংশ থেকে নেমে ৮ শতাংশে চলে এসেছে। সচেতন সমাজকে একত্রিত হয়ে এ কুচক্রী মহলের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে হবে। শুধু হৃদয় মন্ডল নয়। এমন ভাবে অনেকদিন ধরেই সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উপর অত্যাচার করা হচ্ছে। এর বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে।

চারুকলা বিভাগের মনু মোহন বাপ্পার সঞ্চালনায় কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও প্রায় অর্ধশত শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন। 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: