‘সরকার ইভিএমের মাধ্যমে জনগণের অধিকার খর্ব করে বিজয় এনেছে’

সময় ট্রিবিউন | ১৬ জানুয়ারী ২০২২ ২২:৩৪

তৈমূর আলম খন্দকার- ছবি সংগৃহীত তৈমূর আলম খন্দকার- ছবি সংগৃহীত

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনের বেসরকারি ফল পাওয়ার পর পরাজিত প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার বলেছেন, ‘এ বিজয় চুরির বিজয়। সরকার ইভিএমের মাধ্যমে জনগণের অধিকার খর্ব করে এ বিজয় এনেছে। তাই এ ব্যাপারে আমার কিছু বলার নাই।’

রবিবার (১৬ জানুয়ারি) নাসিক নির্বাচনে বেসরকারি ফলাফল নিয়ে নিজের প্রতিক্রিয়া জানাতে ডাকা সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

পাশাপাশি নাসিক নির্বাচনে বেসরকারি ফলাফলে নিজের পরাজয়কে সরকারের পরাজয় বলে অ্যাখ্যা দিয়ে তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, এটা আমাদের নয়, সরকারের পরাজয়। জনগণের ভালোবাসায় আমরা জয়ী, তাদের প্রতি, গণমাধ্যমের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ।

তৈমূর বলেন, আপনারা দেখবেন আমি ঘটনাগুলো জানিয়েছি। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার আমার সমন্বয়ককে কাগজসহ গ্রেপ্তার করা হয়। তার মাধ্যমেই শুরু হয় এবং আমার লোকজন প্রতিদিনই গ্রেপ্তার হতে থাকে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, আপনারা দেখবেন সবাইকে হেফাজতের মামলা দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে অন্য ধর্মাবলম্বীরাও আছে। আজ সকাল থেকে ৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বন্দরের সমন্বয়ককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আমার চিফ এজেন্টের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে। এ অবস্থায় একটা মানুষ স্বতন্ত্র দাড়িয়ে কীভাবে ঠিক থাকতে পারে। তারপরেও জনগণ আমাকে সমর্থন দিয়েছে। আমি সবাইকে ধন্যবাদ জানাই।

ইভিএমের ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়াকে পরাজয়ের অন্যতম কারণ উল্লেখ করে তিনি বলেন, বেশ কিছু কেন্দ্রে ইভিএম ত্রুটিপূর্ণ ও ধীরগতির ছিল। অনেক লোক ভোট দিতে পারেনি। ইভিএমের কারচুপির জন্য আমাদের পরাজয় বরণ করতে হয়েছে। যারা নির্বাচনে আমার পাশে থেকে সহযোগিতা করেছেন তাদের সবাইকে আমি ধন্যবাদ জানাই। আমার লোকজন বাড়িতে থাকতে পারেনি। এটিএম কামালের মতো লোককে ঘেরাও করা হয়েছে গ্রেপ্তার করার জন্য।

 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: