ভূমিহীন হওয়ায় প্রথম হয়েও কনস্টেবল হতে পারলেন না মিম

সময় ট্রিবিউন | ৪ জানুয়ারী ২০২২ ২১:৫৪

মিম আক্তার ও তার পরীক্ষার ফল। ছবি: সংগৃহীত মিম আক্তার ও তার পরীক্ষার ফল। ছবি: সংগৃহীত

নিয়োগ পরীক্ষায় মেধাক্রমে প্রথম হয়েছিলেন। তবে বাবা ভূমিহীন হওয়ায় খুলনা জেলা পুলিশের কনস্টেবল পদে চাকরি হয়নি তার। এমন অভিযোগ চাকরিপ্রার্থীসহ তার পরিবারের।

চাকরিপ্রার্থীর নাম মিম আক্তার। মিমের বাবা একজন ক্ষুদ্রব্যবসায়ী। তার ৪ মেয়ের মধ্যে মিম তৃতীয়। মিম এবার এইচএসসি পরীক্ষা দিচ্ছেন। মিমের পরিবার নগরীর সোনাডাঙ্গা আবাসিক এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন।

তবে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান জানান, স্থায়ী ঠিকানা গোপন করা এবং চোখে সমস্যা থাকায় তার চাকরি হয়নি।

তিনি বলেন, 'মিম চশমা পরেন। এটা আমাদের কাছে গোপন করা হয়েছে। তার ব্যাপারে বিশেষজ্ঞ মতামত রয়েছে। মেডিকেলে তিনি বাদ পড়েছেন। এ ছাড়া তার বাড়ি বাগেরহাটে কিন্তু ঠিকানা দিয়েছেন খুলনার।'

মিমের বাবা রবিউল ইসলাম বলেন, 'আমার মেয়ের চোখে কোনো সমস্যা নেই। পুলিশের কর্মকর্তারা কেউ মিমকে চোখে সমস্যার কথা বলেননি।'

ঠিকানার বিষয়ে তিনি বলেন, '৩২ থেকে ৩৩ বছর আগে বাগেরহাট থেকে চলে এসেছি। কোথাওই আমার কোনো জমি নেই। সে কারণে আমার মেয়ে চাকরির আবেদনে ভূমিহীন সনদ দিয়েছিল।'

মিম আক্তার বলেন, 'প্রায় ১ হাজার ২০০ পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রথম হয়েছি। যারা পাস করেছে তাদের গত ৯ ডিসেম্বর ফোন করে জানানো হলেও আমাকে ফোন করা হয়নি। বিষয়টি জানার জন্য খুলনা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে যাই। পুলিশ সুপার না থাকায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি জানান, আমার স্থায়ী ঠিকানা না থাকায় পুলিশ ভেরিফিকেশনে সমস্যা রয়েছে।'



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: