জাবিতে চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে ডাইনিং কর্মচারীদের বিক্ষোভ মিছিল

সময় ট্রিবিউন | ২৫ জানুয়ারী ২০২২ ১৬:৫৮

চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে মঙ্গলবার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) বিক্ষোভ মিছিল করেছে আবাসিক হলের ডাইনিং কর্মচারীরা-ছবি: সময় ট্রিবিউন চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে মঙ্গলবার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) বিক্ষোভ মিছিল করেছে আবাসিক হলের ডাইনিং কর্মচারীরা-ছবি: সময় ট্রিবিউন

মান্নান, জাবি প্রতিনিধি:

চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) বিক্ষোভ মিছিল করেছে আবাসিক হলের ডাইনিং কর্মচারীরা।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন চত্বর থেকে ‘ডাইনিং হল কর্মচারী সমিতি’র ব্যানারে মিছিল বের করে বিক্ষুব্ধ কর্মচারীরা। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন প্রশাসনিক ভবন, মুরাদ চত্ত্বর হয়ে শহীদ মিনার সংলগ্ন সড়কে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

এসময় ডাইনিং হল কর্মচারী সমিতির সভাপতি মনির হোসেন খন্দকার বলেন, ‘গত দুই বছর আগে সাড়ে তিন হাজার ছাত্রের স্বাক্ষর নিয়ে প্রশাসনের কাছে আবেদন করি। পরে প্রশাসন বলে এব্যাপারে কমিটি গঠন হয়েছে। এর ভিত্তিতে আমাদের চাকরি স্থায়ী করার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়। বলা হয় আমাদের সবাইকে চাকরি দেওয়া হবে। একজনেও বাদ যাবেনা। কিন্তু এতোবছর হতে চললেও আমাদের চাকরি স্থায়ী হলোনা।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা প্রায় ৯৬ জন ডাইনিং কর্মচারী বিভিন্ন হলে কর্মরত আছি। প্রশাসন জানায় চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী নিয়োগ হলে আমাদের থেকে ৩০ শতাংশ মানুষ নেওয়া হবে এবং প্রাধান্য দেওয়া হবে। কিন্তু আমাদের চাকরি দেওয়া হচ্ছেনা। এমনকি আমাদের ডাইনিং সার্ভিসের মেয়াদ ৩২ বছর করেছে। আমাদের দাবি সেটা ৪০ বছর এবং অবসরের বয়স ৫৫ থেকে ৬০ বছর করতে হবে। এছাড়া অবসরকালীন ভাতা বাড়াতে হবে।’

সমাবেশে কর্মচারীদের সাথে সংহতি প্রকাশ করে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘ডাইনিং কর্মচারীদের রক্ত ঘাম করা পরিশ্রমের বিনিময়ে খাবার পায় শিক্ষার্থীরা। তাদের জীবনের নিরাপত্তা অনিশ্চিত করে, অস্থায়ী চাকরির ফাঁদে রেখে প্রশাসন নীরবে একটা অন্যায় করে যাচ্ছে। আমরা আশা করি, ডাইনিং কর্মচারীদের যৌক্তিক আন্দোলনের সাথে নিমকহারামি করবেনা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।’

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি আবু সাইদ, সাধারণ সম্পাদক কনোজ কান্তিসহ প্রমুখ।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: